হৃদয়ছোঁয়া বার্তা; কোরআনের উদাহরণ দিয়ে যা বললেন হাশিম আমলা!

শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নূর নামক একটি স্থানিয় মসজিদে জুম্মার নামায পড়তে যাচ্ছিলেন তামিম-মুশফিকেরা, তারা পৌঁছানোর আগেই সন্ত্রাসী হামলায় মারা যান একাধিক মানুষ।

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে নিন্দার ঝড়। সে তালিকায় নাম লিখিয়েছেন সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটার। দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনার হাশিম আমলাও আছেন এদের মাঝে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে কিছুক্ষণ আগে একটা বার্তা দিয়েছেন আমলা। সেখানে নিউজিল্যান্ডের সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এই প্রোটিয়া ওপেনার।

সুস্পষ্ট ভাবেই বুঝা যাচ্ছে, নিউজিল্যান্ডের আজকের হামলাটি নিরীহ মুসলিমদের বিরুদ্ধে। এটি কোনো বিচ্ছিন্ন হামলা ছিলো না, বরং ঐতিহাসিক ভাবে মুসলিমদের উপর হামলার একটি ধারাবাহিকতার অংশ হিসাবে আজকের হামলাটি হয়েছে।

যা বন্ধুকদারী ব্যবহৃত বন্দুকেই প্রমাণিত। সেটা ভালো করেই জানেন ধর্মাপ্রাণ আমলা। তাই তো তিনি লিখেছেন, ‘বিশ্বসীরা এগুলোকে কিছু মনে করেন না।’ এখানেই থামেননি ৩৫ বছরের ডান হাতি ওপেনার। উদাহরণ হিসেবে উপস্থাপন করলেন কোরআনের আয়াত।

আমলা যে ছবিটি তার টুইট বার্তায় পোস্ট করেছেন সেই ছবিটিতে দেখা যায়, মৃত্যু পথের ওই যাত্রি এমন অবস্থায়ও এক আঙুল উঁচু করে, এক আল্লাহর প্রতি আস্থার জানান দিচ্ছেন।

এব্যাপারে আমলা পবিত্র কোরআন শরীফের সূরা আল ইমরানের ১৭৫ নম্বর আয়াতের উদ্ধৃতি তুলে ধরেন। ‘সুতরাং তোমরা তাদের ভয় করো না। আর তোমরা যদি ঈমানদার হয়ে থাক, তবে আমাকে ভয় কর।’-সূরা আল ইমরান-১৭৫।

মসজিদে হামলায় আহত ব্যক্তিকে নিয়ে আমলর সেই পোস্ট এরপর আমলা আরো যোগ করেন, ‘নিউ জিল্যান্ডের মসজিদে আজকের সন্ত্রাসী হামলার শিকার আহত ব্যক্তিটি এখনও আল্লাহর রহমতে প্রতি দৃঢ় বিশ্বাসী।’

এরপর নিহত এবং হতাহতদের প্রতি আল্লাহর রহমত কামনা করেন আমলা। তার ভাষায়, ‘আল্লাহ তাদের প্রতি রহমত করুন। আমীন।’