বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসছে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়? | পড়ুন বিস্তারিত ...

বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসছে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়?

ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় – গত মাসের মতো এ মাসেও বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাস দিতে আবহাওয়া অধিদফতরের গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি এ পূর্বাভাস দিয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) আবহাওয়া অধিদফতরে কমিটির নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অধিদফতরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিশেষজ্ঞ কমিটির নভেম্বর মাসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, এ মাসে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে, যার মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।’ চলতি মাসে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাত হতে পারে জানিয়ে আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক বলেন, ‘নভেম্বর মাসে দিন ও রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমতে পারে।

তবে এ মাসে গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকতে পারে। এ মাসে দেশের নদী অববাহিকায় ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা বা মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।’ তিনি আরও বলেন, ‘নভেম্বর মাসে মৌসুমী বৃষ্টিপাতজনিত কোনো বন্যার ঝুঁকি নেই। সব প্রধান নদ-নদীর পানি বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হবে।’

সংলাপে যে খাবার দুই পক্ষ তৃপ্তি ভরে খেলেন !!

সংলাপে যে খাবার- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংলাপে যোগ দেওয়া দুই পক্ষের প্রতিনিনধিদের প্রায় কুড়ি রকমের খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করেছেন। আর এই খাবারের বেশির ভাগ খাবার আনা হয়েছে হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টাল থেকে। চিজ কেক আনা হয়েছে হোটেল র‌্যাডিসন থেকে। খাসির রেজালা আনা হয়েছে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন থেকে। মোরগ পোলাও রান্না করে পিয়ারু বাবুর্চি।

বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা৭টায় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্ব ১৪ দলীয় জোট এবং কামাল হোসেনের নেতৃত্বে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা গণভবনে সংলাপে অংশ নেন। সংলাপের শুরুতেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুরুতেই সংলাপে যোগ দেওয়া অতিথিদের সামনে কমলা লেবু, আপেল ও তরমুজের শরবত এবং চিপস দেওয়া হয়। এরপর আলোচনা শুরু হয়।কে।

আলোচনার ফাঁকে ফাঁকে খাবার সরবরাহ চলতে থাকে। খাবার তালিকায় ছিল মোরগ পোলাও, সাদা ভাত, বাটার নান, মাটন রেজালা, রুই মাছের দো পেঁয়াজা, চিতল মাছের কোপতা, রান্না করা মুরগির মাংস, গরুর মাংসের কাবাব, সুপ, মিক্সড লুডুলস, মিক্সড ভেজিটেবল। ছিল কয়েক ধরনের সালাদ। টক দই, মিষ্টি দই ও চিজ কেক ছিল ডেজার্ট হিসাবে। এছাড়াও ছিল কোমল পানীয়, চা ও কফি।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদিক ওষুধের ধারা নারী-পুরুষের সকল জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – খিলগাঁও, ঢাকাঃ। মোবাইল : ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

নির্বাচনের আগে আলোচিত এই সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ২০ সদস্যের প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেন গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার চেয়ারম্যান কামাল। প্রতিনিধি দলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও দলটির নেতাদের মধ্যে ছিলেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস ও আবদুল মঈন খান।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমীন, সাবেক দুই সংসদ সদস্য এস এম আকরাম ও সুলতান মো. মনসুর আহমেদ, জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জেএসডির আ স ম আবদুর রব, তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, আ ও ম শফিকউল্লাহ, মোকাব্বির খান, জগলুল হায়দার আফ্রিক এবং নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না অংশ নেন এই সংলাপে।

উল্লেখ্য, গত রোববার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে সাত দফা দাবি এবং ১১টি লক্ষ্য সংবলিত চিঠি দেয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। মঙ্গলবার সকালে সে চিঠির জবাব আসে ড. কামালের বাসায়। এরপর বিকল্পধারার পক্ষ থেকেও সংলাপে বসার আহ্বান জানানো হয়। আগামীকাল ২ নভেম্বর গণভবনে বিকল্পধারার সঙ্গেও সংলাপে বসবে ১৪ দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*