রনি-প্রমার বিয়ে সম্পন্ন দেখুন ছবি | পড়ুন বিস্তারিত ...

রনি-প্রমার বিয়ে সম্পন্ন দেখুন ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ মুখ ২২ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন খুব বেশিদিন হয়নি। অনেকদিন ধরে টানা অনুশীলন আর সাধনার ফসল হিসেবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জাতীয় দলে স্থান পান আবু হায়দার রনি। নিজেকে প্রস্তুত করছেন জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য একজন পেসার হিসেবে।

শুরুটা কুমিল্লা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স দিয়ে। ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) কুমিল্লা দলের মাধ্যমে অভিষিক্ত হন। ওই আসরে কুমিল্লাকে চ্যাম্পিয়ন করে সকলের নজর কাড়েন রনি। এরপর জাতীয় দলে ডাক পড়ে তার। বিপিএলের আগামী আসরেও কুমিল্লার হয়েই আবার মাঠে দেখবে কুমিল্লার সমর্থকরা।

ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজ চলাকালীন এই তরুণ পেসার বসছেন এবার বিয়ের পিঁড়িতে। দীর্ঘদিনের বান্ধবী সাদিয়া প্রমা সাথে বিবাহে বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন রনি। দুই পরিবারের সম্মতিতেই বৃহস্পতিবার বিয়ে করছেন এই জুটি। ওই রাতেই বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে পোস্ট করেন তিনি।

কবিরাজ : তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদিক ঔষধের দ্বারা নারী- পুরুষের সকল জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – খিলগাঁও, ঢাকাঃ। মোবাইল : ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

এর আগে ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়েছে তাদের গায়ে হলুদ। সেই ছবিও ফেসবুকে নিজের আইডিতে পোস্ট করেন রনি। সাথে সাথেই তা ভাইরাল হয়ে পড়ে। বাঁহাতি পেসার রনির সঙ্গে প্রমার সম্পর্কটা দীর্ঘ সাড়ে ছয় বছরের। তিনি বিজেএমই ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজিতে ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ে অধ্যয়নরত।

বাঁহাতি এই পেসার রনি জানান, সাড়ে ছয় বছরের বেশি সময় ধরে সম্পর্ক। পারিবারিকভাবেই পরিণতি পেয়েছে। জিম্বাবুয়ে সিরিজ শেষে একটু ছুটি পেয়েছি। এই সুযোগেই শুভ কাজটা হচ্ছে। ১৬ তারিখ শ্যামলিতে হবে অনুষ্ঠান। বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে এই তরুণ পেসার নিজেকে চেনান ২০১২ সালের মালেশিয়ায় অনুষ্ঠিত এসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্টে।

মাত্র ১০ রানের বিনিময়ে ৫.৪ ওভার বল করে ঝুলিতে পুরেছিলেন ৯ উইকেট। বিস্ময়ের ঝাঁপি খুলে দেওয়া এই বাঁহাতি উঠতি পেসার সুযোগ পেয়ে যান বিপিএলের তৃতীয় আসরে কুমিল্লা দলে। এরপর তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*